কিভাবে HBsAg বা হেপাটাইটিস “বি” ভাইরাস ছড়ায়

হেপাটাইটিস এর “হেপা” মানে লিভার আর “টাইটিস” দ্বারা প্রদাহকে বোঝায়। অর্থাৎ হেপাটাইটিস বলতে লিভারের প্রদাহকে বোঝানো হয়। হেপাটাইটিসের অনেকগুলো ভাইরাসের মধ্যে একটি হল হেপাটাইটিস বি ভাইরাস- যার সংক্ষিপ্ত রুপ হল HBV যেটি একটি Virus জনিত লিভার রোগ। অনেকেই এটিকে HBsAg নামেও চিনেন। বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার হিসেবে দেখা যায়, বাংলাদেশে হেপাটাইটিস বি ও সি ভাইরাসে প্রায় এক কোটি মানুষ আক্রান্ত। একটি বেসরকারি হিসেবে হেপাটাইটিসে প্রতি বছর ২০ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয় আমাদের এই দেশে।


Related Post: কিভাবে ফেসবুকে লাইক বাড়াবেন


Hepatitis-B Virus নিয়ে উদ্বেগের সবচেয়ে বড় কারণ হচ্ছে সারা বিশ্বে এই ভাইরাসে আক্রান্ত দশজনের মধ্যে নয় জনই জানেন না যে তারা এই ভাইরাস তাদের শরীরে বহন করছেন। Hepatitis B Virus একটি প্রাঙ্ঘাতি ভাইরাস। এই ভাইরাস Hiv Virus থেকেও ১০০ ভাগ বেশি সংক্রামক। তাই এই ভাইরাস এর সংক্রমন থেকে মুক্ত থাকার জন্য দরকার একটু বাড়তি সচেতনতা। সেজন্যে কীভাবে এবং কোন কোন কারনে এই প্রানঘাতি ভাইরাসটি আক্রান্ত ব্যক্তির শরীর থেকে অন্যের শরীরে প্রবেশ করে তা আমাদের জানতে হবে। এ লক্ষে World Health Organization মানুষের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়ছেন। Getting Tested Early= Staying Healthy Longer এই স্লোগানটিরও বিভিন্ন প্রচারনা করেছেন। মূলত Who বিশ্বের সকল মানুষকে জানানোর চেষ্টা করেছেন যে এই ভাইরাস ছরানোর মাধ্যম খুব বেশি কিছু না। মৌলিক কিছু বিষয়ের উপর ভিত্তি করে এ রোগের সূচনা হয়। তাই চলুন জেনে নেই কী কী কারণে এবং কীভাবে Hepatitis-B Virus আক্রান্ত ব্যক্তির শরীর থেকে অন্য কারও শরীরে ছড়ায়ঃ-

HBV Spreading Cause Number- 1: Sexual Contact

Hepatitis B আক্রান্ত ব্যক্তির সাথে অনিরাপদ এবং অরক্ষিত যৌন মিলন হচ্ছে হেপাটাইটিস বি ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার অন্যতম প্রধান কারন। শুধু বাংলাদেসেই নয়, খোদ আমেরিকাসহ উন্নত বিশ্বের দেশগুলোর ৩ ভাগের ২ ভাগ বি ভাইরাস আক্রান্ত রোগি যৌন চাহিদা মেটাতে গিয়ে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তাই যারতার সাথে যৌন মিলন, সমকামিতা এবং কখনো কখনো kissing কারণেও যে কেউ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যেতে পারেন। কারণ আমাদের মনে রাখতে হবে রক্তের পাশাপাশি পুরুষের বীর্য এবং মেয়েদের যৌনি পথের সৃষ্ট তরলে এই ভাইরাসটি পাওয়া গেছে।

HBV Spreading Cause Number 2: Injection Drug Use

Injection এর মাধ্যমে ড্রাগ গ্রহন করা এবং ড্রাগ গ্রহনে ব্যবহৃত Syrings এবং Equipments ব্যবহার করে একাধিক ব্যক্তির মাদক গ্রহন HBV ছড়ানোর একটি উল্লেখযোগ্য কারন। Hepatitis আক্রান্ত রোগিদের মধ্যে প্রায় ১৬ শতাংশ মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ইঞ্জেকশনে ড্রাগ নিতে গিয়ে। ইঞ্জেকশনে ড্রাগ নেয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশেও এই ভাইরাস এর সংক্রমন এবং আক্রান্ত হওয়ার হার প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। 

HBV Spreading Cause Number 3: Mother to Child Transmission

যেসব দেশে HBV আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা খুবই বেশি তাদের মধ্যে এই ভাইরাসটি ছড়ানোর কারণ জানতে গিয়ে দেখা গেছে অধিকাংশ রোগীরা আক্রান্ত হয়েছেন হেপাটাইটিস-এ আক্তন্ত মায়ের কাছ থেকে। তাই যদি আগেই জানাযায় পরিবারের কোন সদস্য যেমন মা, বাবা এমকি ভাই বোনসহ কোন নিকট আত্মীয় এ ভাইরাসে আক্রান্ত তাহলে যথা সময়ে চিকিৎসা করানোর সাথে সাথে অন্যরাও সচেতন হতে পারেন। তাছাড়া যে সব বাচ্ছাদের জন্মের সময় এই ভাইরাস এর ভ্যাক্সিন বা টিকা দেওয়া হয় পরবর্তী সময়ে তারা যেমন এই ভাইরাস এর সংক্রমণ থেকে মুক্তি পান তেমনি তাদের দ্বারা তাদের সন্তানেরাও আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকে না।

HBV Spreading Cause Number 4: House Hold Contact

পরিবারের কোন সদস্য যদি Hepatitis-B Virus এ আক্রান্ত হয় অথবা কোন সদস্য যদি এই Virus এ আক্রান্ত কোন ব্যক্তির সাথে একত্রে বসবাস করে তাহলে আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে অন্যরা আক্রান্ত হতে পারে। যদিও আক্রান্ত ব্যক্তির রক্ত এবং রক্ত্রসের সংস্পর্শে এ রোগে আক্রমনের ঝুঁকি অনেক বেশি থাকে- এছাড়াও আক্রান্ত ব্যক্তির ব্যবহৃত জিনিসপত্র যেমন- Brush, Paste, Rejor, Nail Cutter এমনকি তাঁর আঁচড় বা কামড়েও এ ভাইরাস ছড়াতে পারে।

HBV Spreading Cause Number-5: Blood Related Treatment

Hospital-এ অন্য কোন শারীরিক অসুবিধার জন্য চিকিৎসা নিতে যাওয়া রোগীরা এবং তাদের চিকিৎসা দেয়ার জন্য যেসব স্বাস্থ্য কর্মীরা আছেন তারা উভয়েই Hepatitis-B ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে থাকেন। যেসব রোগীরা নিয়মিত তাদের শরীরে রক্ত গ্রহন করেন, ডায়ালাইসিস করেন অথবা কোন অপারেশন করান, যদি তাদের শরীরে নেয়া রক্ত সঠিকভাবে টেস্ট করা না হয়, WHO এর নিয়ম অনুযায়ী ৫টি টেস্ট না করা হয় তাহলে ডোনার যদি এই ভাইরাস এ আক্রান্ত থাকেন এর থেকে রোগীরাও আক্রান্ত হতে পারেন। আবার যারা ডায়ালাইসিস করান, যেই মেশিনটিতে ডায়ালাইসিস করানো হচ্ছে সেটি যদি সঠিকভাবে পরিচ্ছন্ন না রাখা হয় তাহলেও ডায়ালাইসিসের রোগির শরীরে HBV ছড়িয়ে যেতে পারে।

প্রিয় সুহৃদ, সুস্থ থাকার ক্ষমতা আমাদের সহজাত। কারন সুস্থতা স্বাভাবিক, অসুস্থতা অস্বাভাবিক। কিন্তু আমরা ব্যধি চরম পর্যায়ে না পৌছলে ডাক্তারের কথায় কর্নপাত করি না। যেটি একটি আত্মঘাতি সিদ্ধান্ত। বুদ্ধিমান মানুষ সব সময় নিজের শরীরের যত্ন নেন। তাই আপনিও শুরু করুন আপনার দেহের যত্ন নেয়া। প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে আপনি Hepatitis B Virus এ আক্রান্ত কিনা সেটি চেক করান। আক্রান্ত না হলে সাথে সাথে ভ্যাক্সিন নিয়ে নিন।


Related Post: কিভাবে বুঝবেন ইসলামি ব্যাংকে চাকরি হারাম না হালাল


নিচে কমেন্টস বক্সে আর্টিকেল বিষয়ে মতামত দিন

শেয়ার করার মাধ্যমে আপনার বন্ধুদের এই আর্টিকেল বিষয়ে জানার সুযোগ করে দিন